Thursday , October 17 2019

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু তথ্য

আজ ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মদিনে আর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ।
—————————————–
★জন্ম: ১৭ মার্চ ১৯২০ সাল (বাংলা: ৪ চৈত্র , ১৩২৬)
★তার জন্মদিনে জাতীয় শিশু দিবস পালন করা হয়।
★মৃত্যু :১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সাল (বাংলা :২৯ শ্রাবণ, ১৩৮২ সাল)।
★তার মৃত্যু দিবসে জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়।
★জন্মস্থান : পাটগাতী, টুঙ্গিপাড়া,( বাইগার নদীর তীরে ) গোপালগঞ্জ (মধুমতি নদীর তীরে )।
★পিতা: শেখ লুৎফর রহমান।
★মাতা : মোসাম্মৎ সায়েরা খাতুন।
★ডাকনাম : খোকা।
★শিক্ষাজীবন শুরু: গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়।
★গোপালগঞ্জ মিশনারি স্কুল থেকে তিনি ম্যাট্রিকুলেশন পাশ করেন।
★১৯৪৭ সালে কোলকাতা ইসলামিয়া কলেজ হতে বিএ পাশ করেন।
★ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগের ছাত্র থাকাকালে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির দাবিতে ডাকা ধর্মঘটে নেতৃত্ব দেয়ার কারনে ১৯৪৯ সালে বিশ্ববিদ্যালয় হতে বহিষ্কৃত হন।
★ তার নামে চেয়ার স্থাপিত হয়েছে – ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে।
★১৯৩৮ সনে আঠারো বছর বয়সে তার সাথে ফজিলাতুন্নেসার ( রেনু)বিয়ে হয়।
★প্রতিষ্ঠা কালে তিনি আওয়ামী মুসলিম লীগের যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন।
★যুক্তফ্রন্টের মন্ত্রীসভায় কৃষি, বন ও সমবায় মন্ত্রী ছিলেন।
★তিনি পূর্ব পাকিস্তানের প্রাদেশিক সরকারের শিল্প, বানিজ্য, শ্রম, দুর্নীতি দমন ও ভিলেজ এইড দফতরের মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।
★ভাষা আন্দোলনের সমর্থনে কারাগারেই অনশন ধর্মঘট পালন করেন ১৪-২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৫২সালে।
★১৯৬৬ সালে লাহরে ৬ দফা কর্মসূচি ঘোষনা দেন।
★১৯৬৮সালে আগড়তলা ষড়যন্ত্রের আসামী করা হয়।
★২৩ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯সালে রেসকোর্স ময়দানে তোফায়েল আহমেদ তাকে “বঙ্গবন্ধু” উপাধি দেন।
★৫ ডিসেম্বর তিনি পুর্ব পাকিস্তান কে ‘বাংলাদেশ’ নামে নামকরন করেন।
★৩মার্চ ১৯৭১ সালে তাকে জাতির জনক উপাধি দেয়া হয়।
★ ৭মার্চের ভাষন ইউনেস্ক কতৃক বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিতাভুক্ত হয় ২০১৭ সালে।
★২৬ মার্চ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশর স্বাধীনতা ঘোষনা দেন।
★স্বাধীন বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকারের তিনি ছিলেন রাট্রপতি।
★২৬ মার্চেই তাকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়।
★পাকিস্হানের লায়ালপুর সামরিক জেলে গোপন বিচারের মাধ্যমে দেশদ্রোহী হিসেবে তার মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়৭সেপ্টেম্বর ১৯৭১সালে।(আন্তর্জাতিক চাপে কার্যকর করতে পারে নি)
★৮জানুয়ারি১৯৭২ সালে পাকিস্তান সরকার তাকে মুক্তি দেয়।
★ ১০ জানুয়ারি ১৯৭২ সালে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করেন।
★Newsweek সাময়ীকি তাকে poet of politics উপাধি দেয় ১৯৭২ সালে।
★বিশ্ব শান্তি পরিষদ তাকে জুলীও কুরি পুরষ্কারে ভূষিত করে ১৯৭২ সালে।
★বিবিসি শ্রোতা জরিপে তাকে সর্বকালের সেরা বাঙ্গালী নির্বাচন করা হয়।
★তিনি পাকিস্তানের মিয়ানওয়ালী কারাগারে বন্ধী ছিলেন।
★তিনি মোট ৪৬৮২ দিন কারাগারে কাটান।
★ঢাকার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘর স্থাপিত হয়েছে।
★জাতিসংঘের ২৯ তম অধিবেশনে তিনি বাংলায় ভাষণ দেন।
★তার লেখা আত্মজীবনী মূলক বই- অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা।

Check Also

বাংলাদেশ বিষয়াবলী-প্রধান নির্বাচন কমিশনার

নির্বাচন কমিশনারের নাম মেয়াদকাল বিচারপতি এম ইদ্রিস ০৭/০৭/১৯৭২ – ০৭/০৭/১৯৭৭ বিচারপতি এ কে এম নূরুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − 12 =